সোমবার, ২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার চাকরি গেল ডিএসসিসি’র মশক শ্রমিকের

ডেস্ক নিউজ : লার্ভিসাইডিং-এর কীটনাশক ড্রেনে ফেলে দিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন তথা সরকারের সম্পদ নষ্ট করার দায়ে কর্মচ্যুত করা হলো ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মশক শ্রমিক রাজন দাসকে। অস্থায়ীভাবে দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে কর্মরত অদক্ষ মশক শ্রমিক রাজন দাস ইচ্ছাকৃতভাবে লার্ভিসাইডিং এর জন্য ব্যবহৃত কীটনাশক ড্রেনে ফেলে দেয়ায় তাকে কর্মচ্যুত করা হয়।

একইসাথে, মশক নিধন কার্যক্রম সুপারভাইজিং এ দায়িত্ব পালনে অবহেলার জন্য অঞ্চল-২ এর সুপারভাইজার মনিরুজ্জামানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কর্মচারী চাকুরী বিধিমালা/২০১৯ এর ৪৯ উপ-বিধি মোতাবেক মনিরুজ্জামানকে দায়িত্ব পালনে অবহেলা ও অসদাচরণের জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয় এবং তাকে আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে সিটি কর্পোরেশনের সচিব বরাবরে কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দাখিল করতে নির্দেশ প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য যে, গত ৭ জুন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ২৫ নং ওয়ার্ডের আওতাধীন লালবাগের নবাবগঞ্জ পার্কে কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস “বছরব্যাপী সমন্বিত মশক নিধন” কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। সে সময় লার্ভিসাইডিং কার্যক্রম সুপারভাইজ করতে মনিরুজ্জামানকে নির্দেশনা প্রদান করলেও তিনি সে সময় অনুপস্থিত ছিলেন এবং তার অনুপস্থিতির সুযোগে মশক শ্রমিক রাজন দাস লার্ভিসাইডিং এর জন্য ব্যবহৃত কীটনাশক ড্রেনে ফেলে দিয়ে কর্পোরেশনের সম্পদ বিনষ্ট করেন। পরবর্তীতে এ বিষয়ে কর্পোরেশনের মেয়র তাপসের কাছে অভিযোগ করা হলে মেয়র অভিযোগের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে রাজনকে কর্মচ্যুত ও মনিরুজ্জামানকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদানের নির্দেশনা দেন।

এই বিভাগের আরো খবর