সোমবার, ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাধবদীতে গ্রাম্য শালিসি রায়ে হতাশ হয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা

মাধবদী প্রতিনিধি : মাধবদীতে গ্রাম্য শালিসির বিচারে তালাকের রায় শুনে পারভিন বেগম নামের ৪ সন্তানের এক জননী আত্মহত্যা করেছে। সোমবার (২৪ আগস্ট) রাতে ঘটনাটি মাধবদী থানার পাইকারচর ইউনিয়নের সাগরদী গ্রামে ঘটে। নিহত পারভিন ওই এলাকার সাহেদ মিয়ার মেয়ে ও একই এলাকার জাহাঙ্গীরের দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান,পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে জাহাঙ্গীর গত রমজান মাসে চার সন্তানের জননী পারভিনকে এক লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা দেনমহরে বিবাহ করেন। বিয়েটি প্রথম স্ত্রী মেনে নিতে পারেনি।ফলে পারিবারিক কলহ বৃদ্ধি পায়। পরে এই পারিবারিক কলহের জের ধরে সোমবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে জাহাঙ্গীরের প্রথম স্ত্রী স্থানীয় শালিসিগনের মাধ্যমে বিচার বসান এবং বিচারে উপস্থিত শালিনগণের সিদ্ধান্তক্রমে নিহত পারভিনকে দেনমহর বাবদ বিশ হাজার টাকা পরিশোধ ও জাহাঙ্গীরের সাথে পারভিন এর বিবাহবিচ্ছেদ করার জন্য রায় দেন। এ রায় শোনে পারভিন মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। অনাকাঙ্ক্ষিত এ রায় সে কিছুতেই মেনে নিতে পারেনি। ফলে এ রায় শুনে রাতেই পারভিন আত্মহত্যা করে। মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান জানান,সাগরদী এলাকা থেকে এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয় ও সুরত হাল দেখে নিহত পারভিন এর মরদেহটি নরসিংদী সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়।

এই বিভাগের আরো খবর